মাদারীপুরে প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতি, গণপিটুনিতে ডাকাত নিহত

মাদারীপুর সদর উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের মিয়ারচর গ্রামে প্রবাসীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এতে এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। এ ছাড়া ডাকাতের হামলায় গৃহকর্তাসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল শনিবার রাত ১টার দিকে মাদারীপুর সদর উপজেলার মিয়ারচর গ্রামের সিকু মাতুব্বরের বাড়িত ৩০-৪০ জনের একদল ডাকাত গ্রিল কেটে ঘরে প্রবেশ করে। এরপর ঘরের সবার হাত-পা বেঁধে টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। এ সময় বাড়ির লোকজনের চিৎকার শুনে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে ডাকাতদের ধাওয়া করে। এ সময় স্থানীয়দের গণপিটুনিতে সেলিম খান (২৫) নামে এক ডাকাত ঘটনাস্থলেই মারা যান। নিহত সেলিম চরলক্ষ্মীপুর গ্রামের গোলাপ খানের ছেলে। তিনি ওই এলাকার শাহাদাত হত্যা মামলার আসামি।

এ ছাড়া ডাকাতদের হামলায় সিকু মাতুব্বরের ছেলে প্রবাসী আরবিস মাতুব্বর (৩০) ও তার মা আনোয়ারা বেগম, ভাই কামরুল, সোহাগসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। আহতদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মাদারীপুর মডেল থানার ওসি জিয়াউর মোর্শেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহত সেলিম পেশাদার ডাকাত ছিলেন। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে হত্যা মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। এই ঘটনায় এক নারীকে আটক করা হয়েছে।

Leave a Reply