ইউপি সদস্যের পা কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা

মাদারীপুর সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নে দত্ত কেন্দুয়া এলাকায় আমিনুর রহমান ওরফে দুলাল মাতুব্বরের (৪০) নামের এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্যের পা কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত নয়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

দুলাল মাতুব্বর কেন্দুয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাত নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউল মোর্শেদ প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল রাতে এশার নামাজের পর বাড়ি ফেরার পথে দুলাল হামলার শিকার হন। হামলাকারীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাঁর ডান পা কেটে নিয়ে গেছে। আঘাতে বাঁ পাটি মারাত্মকভাবে জখম হয়েছে। ঘটনার পর দুলালকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেন স্বজনেরা।

দুলালের স্বজনদের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, ওই এলাকার জয়নাল মাতুব্বরের নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে দুলালের অনেক দিন ধরে বিরোধ চলছে। স্বজনদের দাবি, জয়নালের লোকেরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। ঘটনার পর থেকে জয়নাল পলাতক। এ ব্যাপারে একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান ওসি।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার আবু সালেহ আহমেদ জানান, দুলালের ডান পা হাঁটুর নিচ থেকে কেটে নেওয়া হয়েছে। বাম পায়ে গোড়ালির কাছে বেশ কয়েকটি মারাত্মক জখম রয়েছে। বাম পা টিও কেটে ফেলতে হতে পারে। রাতেই তাঁকে ঢাকায় জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে (পঙ্গু হাসপাতাল) পাঠানো হয়েছে।
কেন্দুয়া ইউপি চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ রায়হান কবির জানান, পঙ্গু হাসপাতালে আজ সকালে দুলালের পায়ে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। তিনি দাবি করেন, দুলালকে পঙ্গু করে দেওয়ার উদ্দেশে জয়নাল তাঁর বাহিনী নিয়ে এ হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনার বিচার দাবি করেন তিনি।

Leave a Reply